সব মিলিয়ে খুব অল্প সময় পেয়েছি হানিমুনে: ফারিণ

0
77

বিয়ের পর হানিমুনে মালদ্বীপ গিয়েছিলেন অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণ। মাত্র চারদিনেই শেষ হয় তার মধুমন্দ্রিমা পর্ব। কারণ হিসেবে অভিনেত্রী জানান, শুটিংয়ের ব্যস্ততা এবং স্বামী রাফিদের যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার তাড়া। তারপরও সঙ্গীকে নিয়ে চারদিনের ভ্রমণে সতেজ হয়েই ফিরেছেন।

ফারিণ বলেন, ১৩ আগস্ট মালদ্বীপে গিয়েছিলাম। মাত্র চার দিন ছিলাম। যে দ্বীপে গিয়েছিলাম, সেটা মালে থেকে ৪০ মিনিটের স্পিডবোটের পথ। একটা প্রাইভেট রিসোর্টে ছিলাম। সুন্দর সময় কেটেছে আমাদের। আরও বেশি দিন থাকার ইচ্ছা ছিল। কিন্তু আমার শুটিংয়ের ব্যস্ততা, রাফিদেরও যুক্তরাজ্যে ফেরার তাড়া আছে। আগামী মাসে চাকরিতে যোগ দেবে সে। সব মিলিয়ে খুব অল্প সময় পেয়েছি হানিমুনে। তারপরও কাজের চাপের মধ্যে কিছুটা সতেজ হয়ে ফিরলাম।

বুধবার ফিরেই বৃহস্পতিবার রাতে অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশ্যে উড়াল দেন ফারিণ। দুটি ওয়েব ফিল্মের শুটিংয়েই জন্যই তার এই অস্ট্রেলিয়া সফর। ফারিণ বলেন, সেখানে শিহাব শাহীনের দুটি ওয়েব ফিল্মের শুটিং হবে। আগেই শিডিউল দেয়া ছিল। শিহাব ভাই আগেই চলে গেছেন। হানিমুন সংক্ষিপ্ত করে আমিও যাচ্ছি। চলতি মাসের পুরোটাই শুটিং হবে। আগামী মাসে দেশে ফেরার কথা।

নতুন জীবন নিয়ে অভিনেত্রী বলেন, তেমন কিছুই মনে হচ্ছে না। বিয়ের পর তো বাবার বাড়িতেই আছি। তা ছাড়া কাজের চাপে সবকিছু যেন ভুলেই যাচ্ছি। কাজের চাপে বিয়েটাও আরাম করে করতে পারিনি (হেসে)। ১০ তারিখ পর্যন্ত একটা ওয়েব ফিল্মের শুটিং করেছি। এরপর কোনোমতে সময় বের করে ১১ তারিখে বিয়ে করেছি। ১২ তারিখে ফিল্মের ডাবিং করে ১৩ তারিখে হানিমুনে গিয়েছি।