Saturday, September 19, 2020
- Advertisement -
Home খেলাধুলা নাঁচতে গিয়ে দাঁত হারান রুবেল, লুকিয়ে রাখেন নাসির

নাঁচতে গিয়ে দাঁত হারান রুবেল, লুকিয়ে রাখেন নাসির

নিজেস্ব প্রতিবেদক:

হোম কোয়ারেন্টিনে সময় কাটাতে নিয়মিত সতীর্থদের নিয়ে লাইভ আলাপচারিতায় মেতে উঠছেন তামিম ইকবাল। শুক্রবার (৮ মে) লাইভ আড্ডায় তার সঙ্গী হয়েছিলেন তাসকিন আহমেদ ও রুবেল হোসেন। দুই পেসারের সাথে তামিমের আড্ডায় উঠে আসে মজার অনেক তথ্য।

এক বিষয়- রুবেলের দাঁত খোয়ানো! ‘এ’ দলের হয়ে বিদেশ সফরে গিয়েছিলেন তাসকিন, রুবেল, নাসিররা। ম্যাচের আগে অনুশীলনে ঘাম ঝরিয়ে তারা জড়ো হয়েছিলেন সুইমিংপুলে। এমন সময় রুবেলের একটি দাঁত খুলে পানিতে পড়ে যায়। নাসির সেই দাঁত লুকিয়ে রাখলে দিশেহারা হয়ে পড়েন রুবেল।

তামিম স্মরণ করিয়ে দিলে সেই মজার কাহিনী জানান তাসকিন নিজেই। তাসকিন বলেন, ‘আমরা সবাই সুইমিংপুলে ছিলাম। ম্যাচ বা প্র্যাকটিসের পর তো আমাদের সুইমিং সেশন থাকে। রুবেল ভাই ফাইজলামি করে নাচতেছিলো। হঠাৎ পানির মধ্যে দাঁত খুলে পড়ে গেছে।’

রুবেল পানির মধ্যেই দাঁত খুঁজছিলেন। তবে দুর্ভাগ্যবশত সেটা তিনি খুঁজে পাননি, তবে পেয়েছিলেন তারই সতীর্থ! তাসকিন জানান, ‘পানির মধ্যে দাঁত খুঁজে পাচ্ছিল না।

দাঁতটা নাসির ভাই বা মিঠুন ভাই পেয়ে লুকিয়ে রাখে। লুকিয়ে রাখার পর রুবেল ভাই ম্যানেজারকে বলছে- আমি পরের ম্যাচ খেলব না। জিজ্ঞেস করল- কেন? বলল, দাঁত ফোকলা দেখা যাবে। পরে ম্যাচে উনি আপিল করে না।’

দাঁত হারানো রুবেল আম্পায়ারের কাছে আপিল করা থেকেও নাকি বিরত ছিলেন। লাইভ সেশনেই অতিথি হিসেবে যুক্ত হন নাসির, তিনি নিশ্চিত করেন- রুবেলের দাঁতটা তিনিই লুকিয়েছিলেন।

নাসির বলেন, ‘আমি, তাসকিন আর রুবেল সুইমিং করছিলাম, রাত তখন ৮-৯টা। ওর দাঁত খুলে পড়ে গেছে, আমি পেলাম। পেয়ে পাশে থাকা নারিকেল গাছের গোঁড়ায় লুকিয়ে রাখলাম।

ও পারলে কাঁদে- এমন অবস্থা। পাগল হয়ে গেছে- ওর দাঁত নাই! কী করবে বুঝতে পারতেছে না। আমি যদি বলি ১২টা পর্যন্ত পানির মধ্যে থাকবি, ও থাকবে- এমন অবস্থা। তাসকিন ঠিক কি না? ও পরের ম্যাচ খেলতে চায়নি।

’সূত্রঃ-BDCricTime

- Advertisment -

সর্বশেষ