Saturday, November 28, 2020
- Advertisement -
Home টেলিভিশন আমার ভেতরে মৃত্যুভয় ঢুকেছে , অভিনয় ছেড়ে ইবাদতে মগ্ন হলেন অভিনেত্রী এ্যানি...

আমার ভেতরে মৃত্যুভয় ঢুকেছে , অভিনয় ছেড়ে ইবাদতে মগ্ন হলেন অভিনেত্রী এ্যানি খান

মডেল ও অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিত অ্যানি খান। পাশাপাশি অনুষ্ঠান উপস্থাপক হিসেবেও রয়েছে তার কাজের অভিজ্ঞতা। বিনোদন মিডিয়ার এ পরিচিত মুখ মিডিয়া ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন। হঠাৎ কেন তিনি মিডিয়া ছাড়ছেন কিংবা কাজের পরিধি পরিবর্তন করছেন, এসব বিষয় নিয়ে তিনি কিছু প্রশ্নের উত্তর দেন। পাঠকের জন্য তুলে ধরা হলো।

কেন মিডিয়া ছাড়ছেন?

আমার ভেতরে মৃত্যুভয় ঢুকেছে। আমি আল্লাহকে ভয় করি। ধর্ম এ সাংস্কৃতিক অঙ্গনে কাজ করা পারমিট করে না। মিডিয়ার কারও প্রতিই আমার কোনো অভিযোগ নেই। আমার নিজের বিশ্বাসের জায়গা থেকেই এ অঙ্গনের কাজ ছেড়ে দিয়েছি। আমার মনে হয়, আমি যে কোনো মুহূর্তে মরে যেতে পারি।

যেহেতু পেশাদার অভিনেত্রী হিসেবেই কাজ করেছেন। এখন তাহলে কি উপার্জনের জন্য নতুন কোনো পেশায় যাচ্ছেন?

মিডিয়ার উপার্জনের টাকা দিয়ে আমার সংসার চলেনি। আমরা পারিবারিকভাবে অর্থনৈতিক স্বাবলম্বী। আমাকে চালানোর মতো সামর্থ্য পরিবারের আছে। অন্য সাধারণ মেয়েদের মতোই আমি চলব এখন থেকে। চাকরি করার কোনো পরিকল্পনা কিংবা ইচ্ছা- কিছুই নেই। তবে কিছুদিন পর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলার ইচ্ছা আছে।

আপনি তো বেশ কয়েকটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করছেন। সেগুলোতে কি আর অভিনয় করবেন না?

সঞ্জিত সরকার, গোলাম সোহরাব দোদুল ও আল হারুনের পরিচালনায় তিনটি ধারাবাহিক নাটক এখন প্রচার হচ্ছে। আমি প্রত্যেককেই অনুরোধ করেছি আমাকে যেন বাদ দিয়ে দেয়া হয়। এ ছাড়া কয়েকটি প্রচারচলতি নাটকও আছে। যেগুলোতে হয়তো আমার চরিত্রের ইতি টানার জন্য অন্তত একদিন করে অভিনয় করতে হবে। তবে এগুলোর কাজ করব করোনার প্রভাব কাটার পর। সেগুলো করে দিয়েই অভিনয়কে গুডবাই জানাব।

দীর্ঘদিনের একটি চরিত্রে হঠাৎ করে পরিবর্তন করতে গেলে নাটকের সৌন্দর্য নষ্ট হয়। বিষয়টি কীভাবে দেখছেন?

দেখুন, আমি আগে থেকেই তাদেরকে আমার সিদ্ধান্ত জানিয়েছি। তারপরও যদি কোনো সমস্যা হয় তাহলে তো বলেছিই, একদিন শুটিং করে সেটা শেষ করে দেব। একদিনের জায়গায় হয়তো দু’দিন লাগতে পারে। কিন্তু আমি আমার সিদ্ধান্ত বদলাব না। এ ধরনের চরিত্র বদল বিশ্বের সব দেশের সিরিয়ালেই হয়। এটা নতুন কিছু নয়।

মিডিয়া ছেড়ে দেয়ার বিষয়ে আপনার পরিবারের দৃষ্টিভঙ্গি কী?

আমি যখন নিয়মিত কাজ করতাম, তখনও তারা কিছু বলেননি। আবার এখন যে কাজ ছেড়ে দিচ্ছি তাতেও তাদের কোনো আপত্তি নেই। আমার পরিবারের সব সদস্যই ধার্মিক। তাদের কথা হল আল্লাহ আমাকে হেদায়েত দিয়েছেন। তাই হয়তো আমি সঠিক পথে এসেছি।

দীর্ঘ সময়ের সহশিল্পী কিংবা নির্মাতা প্রযোজকরা আপনার মিডিয়া ছাড়ার বিষয়ে কেমন প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন?

প্রায় প্রতিদিনই নাট্যকার, নির্মাতা, অভিনেতা, কলাকুশলীদের কারও না কারও সঙ্গে কথা হচ্ছে। তারা সবাই আমার এ সিদ্ধান্তকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন এবং অভিনন্দন জানাচ্ছেন। বিষয়টি আমারও ভালো লেগেছে। কাজ না করলেও মিডিয়ার অনেক মানুষের সঙ্গেই যোগাযোগ থাকবে। কারণ ২৩ বছর ধরে এ মিডিয়াতেই কাজ করছি।

সূত্র: যুগান্তর

- Advertisment -

সর্বশেষ

ঢাকায় ফিরলো ‘আয়না’ চলচ্চিত্রের টিম

1
আনিফা আরশি: গুণী চলচ্চিত্র নির্মাতা মনতাজুর রহমান আকবরের নতুন সিনেমা ‘আয়না’। গত ১৪ই অক্টোবর থেকে ধামরাই শুরু হয়েছিলো শুটিং। মোহনা মুভিজ এর ব্যানারে...